ন্যাভিগেশন মেনু

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় ৪ দাবি নিয়ে গেলেন হেফাজতের নেতারা


চার দফা দাবি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে বৈঠক করেছেন হেফাজত নেতারা।

মঙ্গলবার (৪ মে) রাত ৯টা ২০ মিনিটের দিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় যান হেফাজত নেতারা। বের হন রাত ১২টার দিকে। বৈঠকে হেফাজতের সদ্য সাবেক কমিটির মহাসচিব নূরুল ইসলাম জিহাদীর নেতৃত্বে ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দল অংশ নেন।

দাবিগুলো হচ্ছে- হেফাজতে ইসলামের গত আন্দোলনকে কেন্দ্র করে সারাদেশে গ্রেপ্তার হওয়া আলেম-ওলামা ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের অবিলম্বে মুক্তি দেওয়া; আলেম-উলামা এবং ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের গ্রেপ্তার-হয়রানি আতঙ্ক থেকে মুক্তি দেওয়া; ২০১৩ সালে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদের নামে যে মামলাগুলো হয়েছে পূর্ব আলোচনা অনুযায়ী এ সেগুলো প্রত্যাহার করা; দ্রুত কওমি মাদ্রাসাগুলো খুলে দেয়ার ব্যবস্থা করা।

প্রায় তিন ঘণ্টা বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসা থেকে বের হয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন নূরুল ইসলাম জিহাদী।

তিনি বলেন, হেফাজতের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে সারাদেশে গ্রেপ্তারকৃত আলেম-ওলামা ও ধর্মপ্রাণ সাধারণ মুসলিমদের দ্রুত মুক্তির ব্যবস্থা করা হোক। দেশব্যাপী গ্রেপ্তার অভিযান এখনও অব্যাহত রয়েছে। ফলে পবিত্র রমজান মাসে ইবাদত-বন্দেগি করতে না পেরে অজানা আতঙ্কে দিন পার করছে আলেম-ওলামা ও সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষগণ।

নূরুল ইসলাম জিহাদী বলেন, আমরা বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেছি। গ্রেপ্তার আতঙ্ক ও হয়রানি থেকে মুক্তি দেওয়া হোক। বিশেষ করে চট্টগ্রামের হাটহাজারী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গণগ্রেপ্তার চলছে। এতে করে সাধারণ মানুষ আতঙ্কে বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। পবিত্র রমজান মাসে আলেম-ওলামা ও সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষের হয়রানি বন্ধ করতে উনার কাছে বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছি। তিনি আমাদের কথা শুনেছেন, আশ্বাসও দিয়েছেন।

২০১৩ সালে হেফাজতের নেতাকর্মীদের নামে যেসব মামলা হয়েছিল সেগুলো প্রত্যাহারের ব্যবস্থা নিতেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ করা হয়েছে।

ওআ/