ন্যাভিগেশন মেনু

সুন্দরবনের আগুন ২৭ ঘণ্টা পর নিয়ন্ত্রণে

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের দাসের ভারানি এলাকায় লাগা আগুন ২৭ ঘণ্টা পর নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ মে) বেলা ২টার দিকে আগুন লাগার দ্বিতীয় দিনে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিটসহ বন বিভাগের শতাধিক বনরক্ষী ও  কর্মকর্তাদের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

এর আগে সোমবার (৩ মে) দুপুরে দাসের ভারানি এলাকায় আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করে। পরে দিনের আলো ফুরিয়ে গেলে সন্ধ্যা ৭টার দিকে কাজ বন্ধ রাখা হয়। 

মঙ্গলবার সকালে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক জয়নাল আবেদিন সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, দ্বিতীয় দিনে আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের সাথে কাজ করে যাচ্ছে আমাদের শতাধিক স্টাফ ও কর্মকর্তা। 

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন, বাগেরহাটের উপ-সহকারী পরিচালক মো. গোলাম সরোয়ার বলেন, সকাল থেকে পানি দিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেছে তিনটি ইউনিট। আগুন নিয়ন্ত্রণে পানি দেওয়ার জন্য ৪ কিলোমিটার পাইপ বসানো হয়েছে। এখন আগুন নিয়ন্ত্রণে। যতক্ষণ পর্যন্ত আগুন সম্পূর্ণ না নিভে ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা পানি দিয়ে যাবো।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মোহাম্মাদ বেলায়েত হোসেন বলেন, আগুন এখন নিয়ন্ত্রণে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

প্রসঙ্গত, সোমবার দুপুরে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের দাসের ভারানি এলাকায় আগুন লাগে। পরবর্তীতে এলাকাবাসী ধোয়া দেখতে পেয়ে বন বিভাগকে অবহিত করে।

এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি আগুন লেগে সুন্দরবনের অন্তত ৩ শতাংশ বন ভূমি পুড়ে যায়।

এডিবি/