ন্যাভিগেশন মেনু

সবাই টিকা দেবে বলে, কিন্তু হাতে আসছে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী


পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজের টিকার ঘাটতি পূরণের জন্য বিভিন্ন দেশকে টিকা পাঠাতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। সবাই টিকা দেবে বলে। কিন্তু হাতে আসছে না।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ঢাকায় নিযুক্ত ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত ইউসুফ এস ওয়াই রামাদানের কাছে জরুরি ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রী হস্তান্তর অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা জানান।

জরুরি এ ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রী সরবরাহ করেছে বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতি।

এসময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের কাছে অনেক অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আছে জেনে সঙ্গে সঙ্গে তাদের অনুরোধ জানালাম। পরে জানা গেল, করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা কম বলে যে দেশগুলোতে টিকা দেওয়া হবে তার অগ্রাধিকারের তালিকায় বাংলাদেশ নেই। পরে অবশ্য আমরা জেনেছি আমাদের অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দেবে। এ ছাড়া কোভ্যাক্স থেকেও দেবে সেটা বলেনি। তবে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে টিকা পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী।’

আব্দুল মোমেন বলেন, ‘ফিলিস্তিনের জন্য শুধু বাংলাদেশ সরকার নয়, আমাদের দেশের মানুষেরাও সমব্যথী। ফিলিস্তিন আমাদের বড় বন্ধু। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময় থেকে ফিলিস্তিনের জনগণের সঙ্গে আমাদের আত্মার সম্পর্ক।’

তিনি আরো বলেন, ‘যতদিন স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র না হবে ততদিন আমরা ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে আছি। আমরা ইসরায়েলকে গ্রহণ করবো না। আমরা এখনো তাদের স্বীকৃতি দেইনি।’

ওআ/