ন্যাভিগেশন মেনু

রাষ্ট্রীয় সম্মানে শায়িত হলেন অভিনেতা মহসিন


রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় রাজধানীর আজিমপুর কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও একুশে পদকপ্রাপ্ত অভিনেতা এস এম মহসীন।

রবিবার (১৮ এপ্রিল) বেলা ২টা ৪০ মিনিটে অভিনেতা এস এম মহসীনকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। এরপর পরীবাগ মসজিদে নামাজে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয়। এর আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তিনি মারা যান। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বারডেম হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন এই অভিনেতা।

জানা যায়, ৭৩ বছর বয়সী এ অভিনেতা সম্প্রতি পাবনায় একটি ছবির শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন। সেখান থেকে গত ২ এপ্রিল ঢাকায় আসেন। এর পরবর্তীতে তার করোনার উপসর্গ দেখা দিলে তাকে পরিবারের সদস্যরা প্রথমে একটি হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখান থেকে পরবর্তীতে ইমপালসে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে নেওয়া হয় বারডেম হাসপাতালে। সেখানেই তিনি মারা যান।

প্রায় চার দশক ধরে মঞ্চ ও টেলিভিশনে অভিনয় করছেন এস এম মহসীন। তিনি ২০১৮ সালে বাংলা অ্যাকাডেমির সন্মানিত ফেলো লাভ করেন। অভিনয়ে প্রশংসনীয় অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ২০২০ সালে তিনি একুশে পদক পেয়েছেন।

মহসিন টাঙ্গাইল জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা ও সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্য বিভাগের শিক্ষকতা করেছেন। এছাড়া, বাংলাদেশ শিল্পকলা অ্যাকাডেমির ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক হিসেবে এবং জাতীয় থিয়েটারের প্রথম প্রকল্প পরিচালক হিসাবে কাজ করেছেন।

তিনি আতিকুল হক চৌধুরী পরিচালিত রক্তে ভেজা ও কবর নাটকে এবং মুনীর চৌধুরী পরিচালিত চিঠি নাটকে অভিনয় করেছেন। পদক্ষেপ নামক নাটকের মধ্য দিয়ে তিনি রেডিও নাটকে আত্মপ্রকাশ করেন। তিনি থিয়েটার দল ড্রামা সার্কল এ অভিনয় করেছেন।

ওআ/