ন্যাভিগেশন মেনু

মায়ানমারে বিক্ষোভে পুলিশের গুলি, নিহত বেড়ে ৭


মায়ানমারে সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থানের পর দেশজুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভ চলছে। রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দেশটিতে সামরিক জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে আরও অন্তত সাতজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। খবর রয়টার্স’র।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মায়ানমারে সামরিক সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশটিতে জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করছে জনগণ। জনগণ বলছে, গণতান্ত্রিক নির্বাচনে বিজয়ী সূ চি সরকারসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের বন্দি করে ক্ষমতা দখল করে নিয়েছে সেনাবাহিনী। এ কারণে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে দেশটির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ শহরে বিভিন্ন সময়ে বিক্ষোভ মিছিল করে আসছে তারা।

এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, একটি বাস স্টেশনে আশ্রয় নেয়া বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি ছুড়েছে পুলিশ। এই ঘটনায় একজন নিহত এবং আরও একজন আহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেন তিনি।

দক্ষিণাঞ্চলীয় দাওয়েই এলাকার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, সেখানে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি ছুড়লে একজন নিহত এবং এছাড়াও আহত হয়েছে অন্তত ২০ জন। কিয়াও মিন হাইক নামের এক রাজনীতিবিদ রয়টার্সকে ওই বিক্ষোভকারীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে মিজিমা সংবাদ মাধ্যমের সূত্রে বলা হয়েছে, দেশটির ইয়াঙ্গুনে বিক্ষোভে একজন গুলিবিদ্ধ হলে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়াও আহতদের প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হচ্ছে।

এর আগেও দেশটিতে বিক্ষোভের সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে এক তরুণীসহ তিন বিক্ষোভকারী নিহত হয়।

সম্প্রতি নির্বাচনে অং সান সু চির দল বিপুল ভোটে জয়লাভের পর কারচুপির অভিযোগ এনে দেশটিতে সামরিক অভ্যুথান ঘটায় সেনাবাহিনী। এখনও আটক করে রাখা হয়েছে সু চিসহ দেশটির শীর্ষ অনেক নেতাকে।

ওআ/