ন্যাভিগেশন মেনু

ভারতের বাইরে টিকা উৎপাদন করবে সেরাম

করোনা মহামারিতে ভারতের পরিস্থিতি বর্ণনাতীত। প্রায় দু’সপ্তাহ ধরে ধারাবাহিক ভাবে বেড়ে চলেছে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে টিকাকরণ জরুরী। টিকার এই চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশের বাইরে টিকা রপ্তানী বন্ধ করে দেয় দেশটি। এই সমস্যা সমাধানে টিকার জোগানে যাতে ঘাটতি না হয়, তাই দেশের বাইরে টিকা তৈরির প্রস্তুতি শুরু করেছে সেরাম ইনস্টিটিউট। এমনটাই জানিয়েছে এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যম।

সেরাম ইনস্টিটিউট তৈরি করেছে কোভিশিল্ড। গত সপ্তাহেই সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বার্হী কর্মকর্তা আদর পুনাওয়ালা বলেছিলেন, জুলাই মাসের মধ্যে মাসিক ১০ কোটি ডোজ উৎপাদন করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে তারা। যদিও পরে তিনি জানান, মে মাসের মধ্যেই সেই লক্ষ্যমাত্রা পূরণের চেষ্টা করা হচ্ছে। আগামী ৬ মাসের মধ্যে বার্ষিক উৎপাদন মাত্রা ২৫ কোটি থেকে ৩০ কোটি করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে সেরাম। 

ভারতে আজ থেকে শুরু হয়েছে ১৮ বছরের বেশিদের টিকাকরণ। এই পরিস্থিতিতে টিকার জোগানে ঘাটতি যাতে না হয়, সেজন্য দেশের বাইরে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা তৈরির প্রস্তুতি শুরু করেছে সেরাম ইনস্টিটিউট। আদর পুনাওয়ালা বলেছেন, ‘আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই একটি ঘোষণা করা হবে।’ 

 ওআ/