ন্যাভিগেশন মেনু

বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন করা যাবে ৩ মে পর্য়ন্ত


লকডাউনের কারণে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা আবেদনের সময়সীমা বাড়িয়ে ৩ মে পর্যন্ত করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ৩ মে বিকেল তিনটা পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

শনিবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে এ সংক্রান্ত একটি নোটিশ বুয়েটের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

বুয়েটের স্নাতক শ্রেণির ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন গ্রহণ শুরু হয় ১৫ এপ্রিল। শেষ হওয়ার কথা ছিল ২৪ এপ্রিল শনিবার বিকেল ৩টায়। কিন্তু তা বাড়িয়ে আবেদনপত্র জমার সময়সীমা ৩ মে বিকেল তিনটা পর্যন্ত করা হয়েছে।

বুয়েট স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা নেবে দুই ধাপে। এর মধ্যে প্রাক্-নির্বাচনী পরীক্ষা (প্রাথমিক বাছাই) নেওয়া হবে আগামী ৩১ মে ও ১ জুন। এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা ১০ জুন চূড়ান্ত ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেবেন।

‘ক’ গ্রুপে (প্রকৌশল ও বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পন বিভাগ) আবেদন, প্রাক্-নির্বাচনী ও মূল ভর্তি বাবদ ১ হাজার এবং ‘খ’ গ্রুপে (প্রকৌশল ও বিভাগসমূহ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পন বিভাগ ও স্থাপত্য বিভাগে) ১ হাজার ২০০ টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ফি দিয়ে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

আগামী ৩১ মে ও ১ জুন চার শিফটে এক ঘণ্টায় ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পদ্ধতিতে প্রাক্-নির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ৫ জুন মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য আবেদনকারীদের নাম প্রকাশ করবে বুয়েট। আগামী ১০ জুন বুয়েটের মূল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর আগামী ১ জুলাই নির্বাচিত ও অপেক্ষমাণ প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হবে।

আবেদন করার নিয়ম ও ভর্তির নির্দেশিকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (https://www.buet.ac.bd)–তে পাওয়া যাবে। ভর্তি পরীক্ষার সব কার্যক্রমের খবর বুয়েটের ওয়েবসাইট এবং নোটিশ বোর্ডে পাওয়া যাবে।

সিবি/এডিবি/