ন্যাভিগেশন মেনু

বলিউড নয়, দক্ষিণী ছবিই ভরসা রিয়া চক্রবর্তীর

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের রহস্য মৃত্যু ঘিরে নানা সন্দেহের দানা বাঁধে। অভিযোগের তির ওঠে অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর। কারাগারেও যেতে হয়েছে তাকে।

বাঙালি এই অভিনেত্রীর শিগগিরি মুক্তি পেতে চলেছে আগামী ছবি ‘চেহরে’। তবে মুম্বই নয়, আপাতত রিয়া চক্রবর্তীর নয়া গন্তব্য টলিউড অর্থাৎ দক্ষিণী ছবির জগৎ। সেখানেই এবার কাজ করবার পরিকল্পনা করছেন সুশান্ত রাজপুতের প্রাক্তন বান্ধবী।

সম্প্রতি হায়দরাবাদ যাওয়ার সময়ই মুম্বই বিমানবন্দরে রিয়ার সঙ্গে কথা হয় সাংবাদিকদের। বলা ভাল তথাকথিত পাপারাৎজির সঙ্গেও। তখনই জানা যায়, বেশ কয়েকজন পরিচালক ও প্রযোজকদের সঙ্গে দেখা করবেন রিয়া। তবে অভিনেত্রী নিজে এব্যাপারে কিছু বলতে চাননি।

গত বছরের জুনে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই বিতর্ক ঘনায় রিয়াকে নিয়ে। প্রয়াত অভিনেতার বাবা সুশান্তের আত্মহত্যার জন্য দায়ী করেন রিয়াকেই। ঘটনা গড়ায় আদালত পর্যন্ত।

সুশান্তের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে মাদক মামলার কারণে হাজতবাসও করতে হয় তাঁকে। তবে পরে তিনি জামিন পেয়ে যান। কিন্তু সেই থেকেই যেন বলিউডে আর নিজের জায়গা ফিরে পাওয়া সম্ভব হয়নি রিয়ার।

এমনকী, ‘চেহরে’ ছবির প্রথম টিজার কিংবা পোস্টার, সবেতেই অদৃশ্য রিয়া! যা ঘিরে বিতর্কও শুরু হয়। তবে ছবির প্রযোজক আনন্দ পণ্ডিত পরিষ্কার জানিয়েছেন, তাঁরও বিশ্বাস রিয়া দোষী নন। সেই জন্য তাঁকে ছবি থেকে বাদ দেওয়া হয়নি।

কিন্তু তাঁকে ঘিরে থাকা বিতর্কের কারণেই প্রচারে ব্যবহৃত হয়নি তাঁর মুখ। প্রসঙ্গত, গত অক্টোবরে জামিন পান রিয়া। কিন্তু তারপরও বিতর্ক ঘনাতে থাকে তাঁকে ঘিরে।

আপাতত তাই দক্ষিণমুখী রিয়া। তবে তেলুগু ছবিতে রিয়া আগেও কাজ করেছেন। ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘তুনিগা তুনিগা’ নামের এক ছবিতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। যদিও এরপর থেকে তাঁকে কেবল হিন্দি ছবিতেই কাজ করতে দেখা গিয়েছে। এবার অবস্থার বিপাকে ফের দক্ষিণী ছবির জগতেই ফিরতে চলেছে রিয়া।

এস এস