NAVIGATION MENU

ধর্ষককে ২৫ বার কুপিয়ে থানায় ফোন নারীর


ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে খুন করে নিজেই পুলিশে খবর দিলেন এক নারী। এর পরেই পুলিশ ওই মহিলাকে গ্রেফতার করেছে। ঘটনাটি ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্যে ঘটেছে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকা’র।  

জানা গিয়েছে, ছুরি দিয়ে কমপক্ষে ২৫ বার কোপ মেরে খুন করা হয়। কিন্তু কীসের এত রাগ? মহিলা জানিয়েছেন, ২০০৫ সাল থেকে ১৫ বছর ধরে তাঁকে বার বার ধর্ষণ করে ওই ব্যক্তি। গত ১২ অক্টোবর ফের সেই চেষ্টা করতে গেলেই তিনি অস্ত্র হাতে তুলে নেন।

ভোপাল থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে গুনা জেলার এই ঘটনায় মৃতের নাম ব্রিজভূষণ শর্মা। পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্রিজভূষণ জেলার অশোক নগরের বাসিন্দা। খুনের অভিযোগে মহিলার বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

ওই মহিলা পুলিশকে জানিয়েছেন, ব্রিজভূষণ তাঁর প্রতিবেশী ছিল। মাত্র ১৬ বছর বয়সে তিনি প্রথম বার ওই ব্যক্তির হাতে ধর্ষিত হন। সেই মুহূর্তের একটি ভিডিও তুলে রাখে ব্রিজভূষণ। এর পর ব্ল্যাকমেলিং চলতে থাকে। ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকির মুখে দিনের পর দিন তিনি শারীরিক সম্পর্কে যেতে রাজি হন। মহিলার বিয়ে হয়ে যাওয়ার পরেও একই ভাবে হুমকি ও অত্যাচার চলতে থাকে। দিন দিন তা বাড়তেই থাকে। এবার তাই নির্যাতককে চরম শাস্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন দুই মেয়ের মা।

খুনের দিন ঠিক কী হয়েছিল তাও পুলিশকে জানিয়েছেন মহিলা। তাঁর বয়ান মতো, গত ১২ অক্টবোর মদ্যপ অবস্থায় ব্রিজভূষণ তাঁর বাড়িতে আসে। সেদিন তাঁর স্বামী কর্মসূত্রে শহরের বাইরে ছিলেন। সেই সুযোগটা নিয়েই ধর্ষণ করতে আসে ব্রিজভূষণ। মহিলার দুই মেয়ে তখন অন্য ঘরে ঘুমাচ্ছিল। এমন সময় মেয়েদের হেনস্থা করার কথা বলে ব্রিজভূষণ। এর পরেই তিনি রান্নাঘর থেকে ছুরি নিয়ে এসে এলোপাথাড়ি ভাবে কোপাতে শুরু করেন। মৃত্যু হয় ব্রিজভূষণের। এর পরেই থানায় ফোন করে সমস্তটা জানিয়ে খুনের কথা স্বীকার করেন মহিলা।

ওআ/