NAVIGATION MENU

দেশের সর্বোচ্চ দূরত্বের রেলপথ উদ্ধোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী


চালু হলো  দেশের সর্বোচ্চ দূরত্বের ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ নন-স্টপ (বিরতিহীন) ট্রেন সার্ভিস।  শনিবার দুপুর ১টার দিকে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের সর্বোচ্চ দূরত্বের রেলপথ চালু হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পঞ্চগড়বাসী।

দুপুর ১টা ৩০মিনিটে নতুন এ আন্তঃনগর 'পঞ্চগড় এক্সপ্রেস' ট্রেন যাত্রাদিয়ে শুরু হয় বিরতিহীন পঞ্চগড় থেকে  ঢাকা রেলপথে সরাসরি ট্রেন যোগাযোগ। সেই সঙ্গে পঞ্চগড় স্টেশনের নতুন নাম 'বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন ' এর নামফলক উদ্বোধন করেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

'পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনে করে ঢাকায় ফিরছেন  রেলমন্ত্রী। ট্রেনটিতে রয়েছে ইন্দোনেশিয়া থেকে আনা আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন কোচ।

রেলওয়ে সূত্র জানিয়েছে, পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি পাঁচশ ৯৩ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেবে ১০ ঘণ্টায়। ট্রেনটি প্রতিদিন ১২টা ১৫ মিনিটে পঞ্চগড় থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গিয়ে রাত ১০টা ৩৫মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে।

আবার রাত ১২টা ১০ মিনিটে ঢাকা থেকে ছেড়ে সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে পঞ্চগড় পৌঁছাবে। যাত্রাপথে ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, পাবর্তীপুর ও ঢাকা বিমানবন্দর স্টেশনে থামবে। ঢাকা থেকে আসার পথেও এসব স্টেশনে থামবে।

ট্রেনটিতে ভাড়া ‍নির্ধারন করা হয়েছে, শোভন চেয়ার ৫৫০ টাকা, এসি চেয়ার এক হাজার ৩৫ টাকা, এসি সিট এক হাজার ২৬০ টাকা এবং এসি বার্থ এক হাজার ৮৯২ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ট্রেনটির ৩০ শতাংশ আসন পঞ্চগড়ের জন্য, ৩০ শতাংশ দিনাজপুর, ২৫ শতাংশ ঠাকুরগাঁও এবং ১৫ শতাংশ পার্বতীপুরের জন্য নির্ধারিত। সব মিলে ১২টি কোচ নিয়ে প্রায় এক হাজার যাত্রী পরিবহন করবে ট্রেনটি।

এমআইআর /এসএস