ন্যাভিগেশন মেনু

ঢাকা ছেড়েছেন ৫০ লাখ মানুষ!


নাড়ির টানে বা পরিবারের সঙ্গে ঈদুল আজহা উদযাপন করতে ঢাকা ছেড়েছেন প্রায় ৫০ লাখ মানুষ। রাজধানী থেকে ঈদে বাড়ি ফেরা শুরু হয়েছে ১৫ জুলাই থেকে। 

১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে বিধিনিষেধ শিথিল করায় ঈদে ঢাকা ছাড়তে শুরু করেছেন বিপুল সংখ্যক মানুষ। বাস, ট্রেন, লঞ্চ বা ট্রাক; যে যেভাবে পারছেন ঢাকা ছেড়ে গেছেন। ফলে মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকে রাজধানী ফাঁকা হতে থাকে। 

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, রাজধানীর গাবতলী, আফতাবনগর, সাইদনগরের মতো বিভিন্ন পশুর হাট কেন্দ্রিক এলাকগুলোতে যানজট থাকলেও রাজধানীর বেশির ভাগ সড়ক প্রায় ফাঁকা। কিছু ব্যক্তিগত গাড়ি ছাড়া আর কোনও যানবাহন নেই বললেই চলে।

এর আগে ঈদের আগেরদিন মঙ্গলবার দেখা যায়, পরিজনদের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে শেষ সময়ে বাড়িতে যাচ্ছেন মানুষ। তাদের মধ্যে ছিল না কোনও স্বাস্থ্যবিধির মানার বালাই। মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া, মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও সদরঘাটে ঘরমুখো মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি লঞ্চে ধারণক্ষমতার চেয়ে দ্বিগুণ কখনো তিন গুণ যাত্রী বহন করে আসছে। বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে সকাল থেকে মানুষ আসছে। 

এ ছাড়া সায়েদাবাদ, গাবতলী ও মহাখালী বাস টার্মিনালে ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

আর ট্রেনে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে যাত্রী নেওয়ার কথা থাকলেও মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রীদের গাদাগাদি করে ট্রেনে উঠতে দেখা গেছে।

এদিকে, সিম ব্যবহারকারীর তথ্যের ভিত্তিতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) পর্যালোচনা থেকে জানা গেছে, ১৫ থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত ঢাকা ছেড়েছেন ২৬ লাখের বেশি মানুষ। 

পরিবহন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ১৫ জুলাই থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত কমপক্ষে অর্ধকোটি মানুষ ঢাকা ও তার আশপাশ থেকে দেশের বিভিন্ন জেলায় গেছেন।

আগামী ২৩ জুলাই ভোর ৬টা থেকে ৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত আবারও বিধিনিষেধের আগাম ঘোষণা দিয়ে রেখেছে সরকার।

এডিবি/