ন্যাভিগেশন মেনু

ঠাকুরগাঁওে হাসপাতালের চিকিৎসা সামগ্রী চুরির দায়ে আটক ১


ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের চিকিৎসা সামগ্রী চুরি করে বিক্রি করতে গিয়ে জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষাবিদ রুহুল আমিন (৪৫) নামে একজনকে আটক করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) রাতে ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) এর যৌথ অভিযানে শহরের বন্ধন ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটককৃত রুহুল আমিন ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষাবিদ (তৃতীয় শ্রেণী কর্মচারি) পদে কর্মরত ছিলেন এবং সে দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ থানার ভাদুরিয়া গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে।

ভ্রাম্যমান আদালত জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাতে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের সামনে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় আটককৃত ব্যক্তির কাছ থেকে আধুনিক সদর হাসপাতলের চিকিৎসা সামগ্রী হিসেবে ব্যবহৃত ৯৭ পিস স্যালাইন সিরিজ, ৩৯৫ পিস হ্যান্ড গ্লাভস ও ১৩ পিস ক্রেপ ব্যান্ডেজ রোল উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক মুল্য ২৬ হাজার টাকা।

এবিষয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট অমিত কুমার সাহা বাংলাদেশ পোস্টকে বলেন, বিষয়টি নিয়ে আরও তদন্ত করা প্রয়োজন। তাই আটক রুহুল আমিনকে সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে এবং থানায় নিয়মিত চুরির মামলা দায়ের করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. রকিবুল আলম বলেন, সরকারি চিকিৎসা সামগ্রী কিভাবে চুরি হলো তা খতিয়ে দেখা হবে। আটক রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে চুরির মামলা দায়েরের পাশাপাশি বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হবে।  এর সাথে অন্য কেউ জড়িত থাকলে তাদেরও বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বি আই বি/এস এ/ওআ