ন্যাভিগেশন মেনু

চিনের টিকা সিনোভ্যাক-এর অনুমোদন দিলো ডব্লিউএইচও

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবেলায় জরুরি ব্যবহারের জন্য চিনের দ্বিতীয় ভ্যাকসিন হিসেবে সিনোভ্যাক-এর অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

মঙ্গলবার (১ জুন) জাতিসংঘের স্বাস্থ্যবিষয়ক এই সংস্থাটি সিনোভ্যাকের টিকার অনুমোদন দিয়েছে।

বুধবার (২ জুন) বিবিসি জানায়, ডব্লিউএইচও জানিয়েছে যে, এই টিকা দেওয়া ৫১ শতাংশের মধ্যে লক্ষণজনিত রোগ প্রতিরোধ করেছে এবং শতভাগ নমুনায় গুরুতর লক্ষণ এবং হাসপাতালে ভর্তি রোধ করতে সক্ষম।

সিনোফর্মের পর এটি দ্বিতীয় চিনা ভ্যাকসিন যা ডব্লিউএইচও'র অনুমোদন পেয়েছে।

বেশ কয়েকটি দেশে ইতোমধ্যে এই ভ্যাকসিনটি ১৮ বছরের বেশি বয়সিদের প্রয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে। এর দ্বিতীয় ডোজ দুই থেকে চার সপ্তাহ পরে প্রয়োগ করার কথা বলা হয়েছে।

সিনোভ্যাকের এই টিকা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কোভ্যাক্স প্রোগ্রামের আওতায়ও আসবে বলে জানা গেছে। বিভিন্ন দেশে এই টিকার তৃতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে ৫১ শতাংশ থেকে ৮৪ শতাংশ কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে বলে জানিয়ে বিশেষজ্ঞরা।

ব্রাজিলের একটি শহরে এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, সিনোভ্যাক-এর টিকা প্রয়োগের ফলে কোভিডে মৃত্যুর হার ৯৫ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে।

এর আগে, গেল ৭ মে চিনের রাষ্ট্রায়ত্ত ওষুধ কোম্পানি সিনোফার্মের টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দেয় ডব্লিউএইচও।

এস এ/এডিবি/