NAVIGATION MENU

খাদ্যাভাসের কারণে বছরে মৃত্যু কোটি লোকের


প্রতিনিয়ত স্বাস্থ্যকর খাবারে মনোযোগ দেয়ার কথা বলছেন গবেষকরা। এছাড়া কমে যাচ্ছে জীবনের আয়ু ডায়েটের কারণেই।

গবেষকদের করা এক পরীক্ষায় দেখা গেছে, প্রতি বছর এক কোটিরও বেশি মানুষ মারা যাচ্ছে শুধু খাবারের কারণেই। ল্যানচেটে প্রকাশিত এক বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে প্রতিদিনের যে খাদ্য তালিকা সেটিই ধূমপানের চেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটায়।

এছাড়া বিশ্বব্যাপী প্রতি পাঁচটি মৃত্যুর মধ্যে একটির জন্য এই ডায়েট বা খাবারই দায়ী। লবণ,পাউরুটি, সস বা মাংস- এগুলো জীবনের আয়ু কমিয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখে। এক গবেষণায় দেখা হয়েছে কিভাবে নিম্নমানের খাদ্যাভ্যাস (পুওর কোয়ালিটি) হৃদযন্ত্রের ক্ষতি বা ক্যান্সারের কারণ হচ্ছে।

লবণ উচ্চ রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয় যা স্ট্রোক বা হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকির কারন। এছাড়া লবন হার্টে ও রক্ত বহনকারী ধমনীর ওপর সরাসরি প্রভাব ফেলে। এক কোটি দশ লাখ ডায়েট সম্পর্কিত মৃত্যুর মধ্যে এক কোটি মানুষের মৃত্যুই হচ্ছে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে।

এছাড়া আমাদের সঠিক খাবার গ্রহণ ও বর্জন খুবই গুরত্বপূর্ণ।  পরীক্ষায় দেখা গেছে, বিশ্বব্যাপী যে স্বাস্থ্যকর খাবার বেশি বাদ যাচ্ছে তা হলো - বাদাম ও বীজ জাতীয় খাবার, ভালো থাকার জন্য বাদাম জাতীয় খাবার গুরুত্বপূর্ণ। তাই গবেষকরা মনে করছেন, চর্বি কিংবা সুগারের কথা কম বলে স্বাস্থ্যকর খাবারের কথা বেশি বলা উচিত।


এমআইআর  / এসএস