ন্যাভিগেশন মেনু

কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট স্থগিত

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। বলিউডে মাঝে মধ্যেই কোনো না কোনো বিস্পোর নিয়ে নানান তর্ক বিতর্ক চলে। কিন্তু অভিনেত্রী কঙ্গনা নিত্যদিনই কোনো না কোনো বিতর্কে থাকবেনই। এ জন্য তাঁকে অনেকে ‘বিতর্কের রানি’ বলেও আখ্যা দেন। আর তাঁর এই মন্তব্য প্রকাশের অন্যতম হাতিয়ার হচ্ছে মাইক্রো-ব্লগিং সাইট টুইটার।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, একাধিক বিতর্কিত টুইট করায় কঙ্গনার অ্যাকাউন্ট সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে টুইটার কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে একের পর এক টুইট করতে দেখা যায় কঙ্গনাকে। 

কঙ্গনা টুইটে লিখেছিলেন, ‘বাংলাদেশ আর রোহিঙ্গারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি। যা ট্রেন্ড দেখছি তাতে বাংলায় আর হিন্দুরা সংখ্যাগরিষ্ঠ নেই এবং তথ্য অনুযায়ী পুরো ভারতের অন্য এলাকার তুলনায় বাংলার মুসলিমরা সবচেয়ে গরীব আর বঞ্চিত। ভালো আরেকটা কাশ্মীর তৈরি হচ্ছে।’

এদিকে, টুইটার অ্যাকাউন্ট স্থগিত হওয়ার পর ইনস্টাগ্রামে ভিডিও পোস্ট দিয়ে কঙ্গনা একে ‘গণতন্ত্রের মৃত্যু’ আখ্যা দিয়েছেন। পোস্টে আগের মতোই ‘#বেঙ্গলবার্নিং’ হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেছেন কঙ্গনা।

কঙ্গনা রনৌতকে আগামীতে ‘থালাইভি’ সিনেমায় দেখা যাবে। সিনেমাটি হিন্দি, তামিল ও তেলেগু ভাষায় মুক্তি পাবে। এ এল বিজয় পরিচালিত এ সিনেমায় কঙ্গনা ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় রয়েছেন অরবিন্দ স্বামী, প্রকাশ রাজ, মধু ও ভাগ্যশ্রী।

ওআ/