ন্যাভিগেশন মেনু

উইয়ের উদ্যোগগুলো ভবিষ্যতে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ আসবে: পলক


উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরামের (উই) বিএসএমের মতো উদ্যোগগুলোর প্রাতিষ্ঠানিক রূপ আসবে ভবিষ্যতে। উইয়ের সদস্যদের জন্য টেকনোলজি, ট্রেনিং, ট্রেড লাইসেন্স, ট্রান্সেকশন এবং সবাইকে এক করে কাজ করাটা ভীষণভাবে জরুরি বলে জানিয়েছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

শনিবার (১০ এপ্রিল) বিকেলে উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরামের আয়োজনে বায়ার সেলার মিটের সমাপনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘উইয়ের সদস্যরা আমাদের শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব বিকেল ৪টা থেকে ৬টা পর্যন্ত যাতে ব্যবহার করতে পারেন, সেটা নিয়ে কাজ চলছে। দেশের ৫৫০টি ডিজিটাল সার্ভিস এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টার হতে যাচ্ছে। যার মাধ্যমে উইয়ের উদ্যোক্তারা সহজে কাজ করতে পারবেন।’

তিনি বলেন, ‘৬৪টি জেলায় আইটি ইনকিউবেশন সেন্টার, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, একশপ বা একপে’র মাধ্যমে উইয়ের সদস্যরা ব্যবসা করতে পারবেন।’

পলক বলেন, ‘উইয়ের উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারের দ্বার সব সময় উন্মুক্ত থাকবে। উইয়ের মাধ্যমে দুই হাজার উদ্যোক্তাকে অনুদান দেওয়া হচ্ছে ৫০ হাজার টাকা করে। আমি উইয়ের থেকেএকশ’ জনের তালিকা নেবো। যাদের ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত মাত্র ৪ শতাংশ সুদে বিশেষ বিনিয়োগ করবে আইটি ডিভিশন।’

এমআইআর/এডিবি